• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ৯ শ্রাবণ ১৪২৮
  • ||
  • আর্কাইভ

চাঁদপুর পৌরসভার কর আদায়কারী চপলের বিরুদ্ধে বিদ্যুৎ আদালতে মামলা ॥ সাড়ে পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা

প্রকাশ:  ১০ মে ২০২১, ১৪:২৪
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

চাঁদপুর পৌরসভার কর আদায়কারী তৌহিদুল ইসলাম চপলের বিরুদ্ধে বিদ্যুৎ আদালতে মামলা করেছে পিডিবি। একই সাথে সাড়ে পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। তার বাসায় অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়ে বিদ্যুৎ ব্যবহার করায় চাঁদপুর পিডিবি তার বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেয়। গত ২ মে রোববার চাঁদপুর বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা এই অভিযান চালান। চাঁদপুর পিডিবির নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ মিজানুর রহমানের সাথে কথা বলে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।
চাঁদপুর শহরের আদর্শ মুসলিম পাড়ায় (ঘোষ পাড়া) বসবাস করেন তৌহিদুল ইসলাম চপল। তিনি চাঁদপুর পৌরসভার কর আদায়কারী। জানা গেছে তার বাসায় পাঁচটি এয়ারকন্ডিশন রয়েছে। এর মধ্যে একটি বৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়ে চালানো হয়, আর অপর চারটি অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়ে চালানো হতো। প্রায় দেড় বছর যাবত তিনি এই অপকর্মটি করে আসছেন। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে চাঁদপুর পিডিবি কর্তৃপক্ষ গত ২ মে তার বাসায় অভিযান চালায়। অভিযানকালে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়। তখন তার বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয় কর্তৃপক্ষ।
চাঞ্চল্যকর এই সংবাদটি এতোদিন গোপন থাকলেও এক পর্যায়ে সংবাদ কর্মীদের কাছে খবরটি চলে আসে। বিষয়টি নিশ্চিত হতে চাঁদপুর কণ্ঠের এই প্রতিবেদক গতকাল কথা বলেন চাঁদপুর পিডিবির নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ মিজানুর রহমানের সাথে। তিনি জানান, আমরা গোপন সূত্রে খবর পেয়ে তৌহিদুল ইসলাম চপলের আদর্শ মুসলিম পাড়ার বাসায় অভিযান চালাই। অভিযানে গিয়েছেন চাঁদপুর পিডিবির সহকারী প্রকৌশলী এবং উপ-সহকারী প্রকৌশলী। তারা সেখানে গিয়ে অভিযোগের সত্যতা পান। তারা দেখতে পান এই ব্যক্তি তার বাসায় অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়ে একাধিক এসি ব্যবহার করছেন। প্রায় দেড় বছর যাবত তিনি এই অপরাধ করে আসছেন। তাৎক্ষণিক আমরা বিদ্যুতের আইন অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেই। তাকে সাড়ে পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা করা হয় এবং বিদ্যুৎ আদালতে তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।
নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ মিজানুর রহমান বলেন, সমাজের এমন একজন দায়িত্বশীল এবং সচেতন ব্যক্তি এ ধরনের জঘন্য কাজ করলো, তাতে আমরা বিস্মিত। যারা গোপনে এ সংবাদটি আমাদের দিয়েছেন তাদের প্রতি তিনি কৃতজ্ঞতা জানান এবং এসব অপরাধ ও অনিয়মের বিষয়ে সোচ্চার হতে জনগণের প্রতি তিনি আহ্বান জানান।
এদিকে চাঞ্চল্যকর এই অভিযানে তৌহিদুল ইসলাম চপলের এমন কর্মকা-ে এলাকাবাসী হতবাক হন। তারা ধিক্কার জানান তার প্রতি। ক্ষোভের সাথে তারা বলেন, তিনি চাঁদপুর পৌরসভার কর আদায়কারী। এই পৌরসভার যারা হোল্ডিংধারী তাদের নানা অনিয়ম তিনি ধরবেন, ব্যবস্থা নিবেন এবং তার তৎপরতায় অনিয়ম দূর হবে এটাই আমরা প্রত্যাশা করি। এখন দেখছি যে উল্টো তিনি নিজেই জঘন্য অপরাধ, অনিয়ম ও দুর্নীতির সাথে জড়িত। এলাকাবাসী আরো জানান, তিনি পৌরসভার একজন কর আদায়কারী মাত্র। তার বেতন কতো হতে পারে তা আমাদের ধারণা আছে। কিন্তু তার শান শওকতের সাথে জীবন-যাপন দেখে নানা প্রশ্ন জাগে। বৈধ আয় দিয়ে এতোটা উচ্চাভিলাষী জীবন-যাপন সম্ভব নয় বলে এলাকাবাসী মন্তব্য করেন।