• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ২৫ বৈশাখ ১৪২৮
  • ||
  • আর্কাইভ

লক্ষ্মীপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধে স্বামী-স্ত্রীসহ আহত ৬

প্রকাশ:  ২৭ এপ্রিল ২০২১, ১১:১৩
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

বাবার পৈত্রিক সম্পত্তি ভাগ-বাঁটোয়ারা ও সীমানা নির্ধারণ নিয়ে সহোদর ভাইদের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এতে দু’টি পরিবারের স্বামী-স্ত্রী সহ ৬জন আহত হয়েছেন। আহতরা ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। গত রোববার বিকেলে ঘটনাটি ঘটেছে চাঁদপুর সদর উপজেলার লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নের শ্রীরামপুর গ্রামের সব্দার খান বাড়িতে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন মোঃ শহিদ খান (৫০) ও তার স্ত্রী সাজেদা বেগম (৪৫), মোহাম্মদ হাবিব খান (৫৫) ও তার স্ত্রী সাজেদা বেগম (৪৮), মনোয়ার খান (২৫), মানির খান (২০) এবং ফিরোজ খান (২২)।
ফিরোজ খান জানান, ঘটনার দিন আমার বড় জেঠা মোঃ সাদেক খান (৬০) এবং তার ছেলে আমির হোসেন খান (৩৫), জহির খান (৩০) শরিফ খান (২৭)সহ আরো অজ্ঞাত কতিপয় সন্ত্রাসী নিয়ে আমার শহীদ চাচাকে এলোপাতাড়ি মারধর করলে তার বাম হাতের বাহুর হাড় ভেঙ্গে যায়। এতে আমার বাবা-মা বাধা দিলে দুর্বৃত্তরা আমার বাবা-মাকেও বেদম মারধর করে। এ সময় আমার বাবার মাথা ফাটিয়ে ফেলায় নয়টি সেলাই দেয়া লাগে। মায়ের নাক-মুখে মারাত্মক জখম হয়েছে। আমার চাচীর মাথায় ১০টি সেলাই লেগেছে। বর্তমানে আমরা সবাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছি।
মনোয়ার খান জানান, আমার জেঠাতো ভাইয়েরা তুচ্ছ ঘটনায় রমজান মাসে আমাদের মা-বাবাকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে। বাবার হাতের হাড় ভেঙ্গে গেছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্যে হয়তোবা ঢাকা নেয়া লাগতে পারে। আমরা এ ব্যাপারে চাঁদপুর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করবো। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় একজন মেম্বার জানিয়েছেন, মৃত আব্দুস সাত্তার খানের বড় ছেলে সাদেক খান তার ছোট ২ ভাইয়ের স্ত্রী-সন্তানদের কতিপয় সন্ত্রাসীদের নিয়ে বেদম মারধর করেছেন। এ ব্যাপারে আগেও তারা কয়েক দফা সালিস করেছেন।