• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • শুক্রবার, ২২ জানুয়ারি ২০২১, ৮ মাঘ ১৪২৭
  • ||
  • আর্কাইভ

ব্রেকিং নিউজ

পাকিস্তানকে বড় লজ্জার হাত থেকে বাঁচালেন রিজওয়ান

প্রকাশ:  ২৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:৪৬
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

প্রথম দুই ম্যাচ জিতে আগেই সিরিজ নিশ্চিত করে রেখেছিল স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড। আজ (মঙ্গলবার) তৃতীয় ম্যাচেও আগে ব্যাট করে দাঁড় করিয়েছিল জেতার মতো সংগ্রহ। তবে পরে ব্যাট করতে নামা পাকিস্তানের পক্ষে হার মেনে নিতে রাজি ছিলেন না উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ রিজওয়ান। তার ৮৯ রানের ইনিংসে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা এড়িয়েছে পাকিস্তান।

এবারের আগে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সবশেষ ২০১৮ সালের সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতেছিল পাকিস্তান। এবার বদলে গেল হিসেব। উল্টো ০-৩ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ হওয়ার দ্বারপ্রান্তে চলে গেছিল তারা। রিজওয়ানে বীরত্বপূর্ণ ইনিংসে ১৭৪ রানের লক্ষ্য তাড়া করে ৪ উইকেটে ম্যাচ জিতেছে সফরকারীরা।

নেপিয়ারে সিরিজের শেষ ম্যাচে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমেছিল নিউজিল্যান্ড। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৭৩ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায় তারা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৩ রান করেন ডেভন কনওয়ে। তার ৪৫ বলের ইনিংসে ছিল ৭ চার ও ১ ছয়ের মার। এছাড়া টিম সেইফার্ট ৩৫ ও গ্লেন ফিলিপস করেন ৩১ রান।

পাকিস্তানের পক্ষে বল হাতে ৪ ওভারে মাত্র ২০ রান খরচায় ৩ উইকেট নেন ফাহিম আশরাফ। এছাড়া ২টি করে উইকেট নেন শাহিন শাহ আফ্রিদি ও হারিস রউফ। তবে দুজনই খরচ করেন ৪ ওভারে চল্লিশের বেশি রান।

রান তাড়া করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে ৪২ রান যোগ করেন পাকিস্তানের দুই ওপেনার হায়দার আলি (৯ বলে ১১) ও মোহাম্মদ রিজওয়ান। দ্বিতীয় উইকেটে মোহাম্মদ হাফিজের (২৯ বলে ৪১) সঙ্গে আরও ৬৮ রান যোগ করেন রিজওয়ান। মূলত এতেই জয়ের ভিত পেয়ে যায় পাকিস্তান।

বাকি কাজ সারেন রিজওয়ান নিজেই। ইনিংসের শেষ ওভারে দলের জয়ের জন্য ৩ রান বাকি থাকতে আউট হন তিনি। সাজঘরে ফেরার আগে ১০ চার ও ৩ ছয়ের মারে ৫৯ বলে ৮৯ রান করেন এ ডানহাতি ব্যাটসম্যান। শেষপর্যন্ত ২ বল হাতে রেখে ৬ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ জিতে নেয় পাকিস্তান। কিউইদের পক্ষে দুইটি করে উইকেট নেন সাউদি ও কুগলেইন।

শেষ ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছে পাকিস্তানের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ রিজওয়ান এবং সিরিজসেরার পুরস্কার জিতেছেন নিউজিল্যান্ডের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান টিম সেইফার্ট।

নিউজিল্যান্ড একাদশ: মার্টিন গাপটিল, টিম সেইফার্ট (উইকেটরক্ষক), কেন উইলিয়ামসন (অধিনায়ক), ডেভন কনওয়ে, গ্লেন ফিলিপস, জিমি নিশাম, কাইল জেমিসন, ইশ সোধি, স্কট কুগলেইন, টিম সাউদি এবং ট্রেন্ট বোল্ট।

পাকিস্তান একাদশ: মোহাম্মদ রিজওয়ান (উইকেটরক্ষক), হায়দার আলি, মোহাম্মদ হাফিজ, শাদাব খান (অধিনায়ক), হুসাইন তালাত, ইফতিখার আহমেদ, খুশদিল শাহ, ফাহিম আশরাফ, হারিস রউফ, শাহিন আফ্রিদি এবং মোহাম্মদ হাসনাইন।

সর্বাধিক পঠিত