• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২ আশ্বিন ১৪২৮
  • ||
  • আর্কাইভ

বিএসটিআই’র মান নিয়ন্ত্রণ সনদ ছাড়াই নোংরা পরিবেশে তৈরি হচ্ছে সেমাই

প্রকাশ:  ২১ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৩৪
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

 চাঁদপুরের বিভিন্ন এলাকায় গড়ে ওঠা অধিকাংশ বেকারি বিএসটিআইর মান নিয়ন্ত্রণ সনদ ছাড়াই অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে তৈরি হচ্ছে রুটি, কেক, বিস্কুটসহ লাচ্ছা সেমাই। রোজার ঈদকে সামনে রেখে চাঁদপুর শহর ও জেলার বিভিন্ন উপজেলার হাট-বাজারে বেশ কয়েকটি সেমাই কারখানা গড়ে উঠেছে। সবচেয়ে বেশি সেমাই তৈরি হয় পুরাণবাজার। এখানে ৫টি বেকারিতে সেমাই তৈরি হয়। ১৯ এপ্রিল সোমবার জেলা প্রশাসকের নির্দেশক্রমে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অমিত চক্রবর্তী ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে রয়েজ রোডস্থ মুনসুরের সেমাই কারখানাসহ দুটি সেমাই কারখানাকে ১৭ হাজার টাকা জরিমানা করে সর্তক করা হয়। এছাড়া নতুনবাজারে ঢাকা কনফেকশনারী, মৈশাদী, হাজীগঞ্জ, মতলবে একাধিক সেমাই কারখানা রয়েছে। সেখানে এখন দেদারছে তৈরি হচ্ছে ঈদের অত্যাবশ্যকীয় খাদ্যপণ্য লাচ্ছা সেমাই।
করোনা মহামারীর সংক্রমণরোধে এখন লকডাউন চলছে। এ পরিস্থিতিতে বেকারিগুলোতে আদৌ স্বাস্থ্যবিধি মানা এবং তাদের উৎপাদিত সেমাই মানসম্মত এবং স্বাস্থ্যকর পরিবেশে হচ্ছে কি-না তা খতিয়ে দেখা অপরিহার্য বলে সচেতন মহল মনে করেন। এক্ষেত্রে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত রাখা হবে বলে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে। চাঁদপুরের দুটি সেমাই কারখানায় অভিযান পরিচালনা করছে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

 

 

সর্বাধিক পঠিত