• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০
  • ||
  • আর্কাইভ

আজ থেকে চাঁদপুরে ১০ দিনব্যাপী একুশে বইমেলা শুরু

প্রকাশ:  ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৯:৪১
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের আয়োজনে ও চাঁদপুর পৌরসভার পৃষ্ঠপোষকতায় চাঁদপুর কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার প্রাঙ্গণে ১০ দিনব্যাপী অমর একুশে বইমেলা শুরু হচ্ছে আজ ১১ ফেব্রুয়ারি রোববার থেকে। যা শেষ হবে ২১ ফেব্রুয়ারি বুধবার রাত ১০টায়। আজ সন্ধ্যা ৬টায় আনুষ্ঠানিকভাবে মেলার উদ্বোধন করবেন জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি থাকবেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বিপিএম, পিপিএম, চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটোয়ারী দুলাল, চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র অ্যাডঃ জিল্লুর রহমান জুয়েল ও চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহাদাত হোসেন শান্ত। সভাপতিত্ব করবেন বইমেলা উদ্যাপন কমিটির আহ্বায়ক অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোস্তাফিজুর রহমান। সংক্ষিপ্ত আলোচনা পর্ব শেষে জেলা শিল্পকলা একাডেমি ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট চাঁদপুর-এর ব্যবস্থাপনায় একুশকে নিয়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হবে।
প্রতিদিন দুপুর ২টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত সকল মানুষের জন্য বইমেলা উন্মুক্ত থাকবে। বইমেলাকে ঘিরে কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার বেদিতে প্রতিদিন অনুষ্ঠিত হবে সাহিত্য একাডেমি, চাঁদপুর এবং স্থানীয় কবি ও লেখকদের স্বরচিত কবিতা পাঠ ও সাহিত্য আড্ডা। এছাড়া প্রতিদিন থাকছে জেলা শিল্পকলা একাডেমি ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের ব্যবস্থাপনায় চাঁদপুর শহরের প্রসিদ্ধ সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাংস্কৃতিক পরিবেশনা এবং বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশানভুক্ত সদস্য নাট্য সংগঠনগুলোর পরিবেশনায় পথনাটক।
বইমেলা প্রাঙ্গণকে সুন্দর ও নান্দনিক করার লক্ষ্যে চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র জিল্লুর রহমান জুয়েলের দিক-নির্দেশনায় ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। বইমেলায় অংশগ্রহণকারী প্রতিটি লাইব্রেরি ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে সনদপত্র ও অংশগ্রহণের শুভেচ্ছা স্মারক আনুষ্ঠানিকভাবে তুলে দেয়া হবে। সমাপনী অনুষ্ঠান ২১ ফেব্রুয়ারি রাষ্ট্রীয় কর্মসূচির আদলে সাজানো হবে। এ অনুষ্ঠানে অংশ নেয়ার জন্য সমাজকল্যাণমন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপিকে আমন্ত্রণ জানানো হবে।
অন্যদিকে অমর একুশের প্রথম প্রহর রাত ১২টা ১ মিনিটে চাঁদপুর কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার বেদিতে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, জেলা পরিষদ, পৌরসভাসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠন, বিভিন্ন সরকারি দপ্তর ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হবে। এদিন ২০ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে ১০টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণ থেকে চাঁদপুর জেলা শহরের সকল শিল্পীদের সমন্বয়ে জাগরণী শুরু হয়ে শহিদ মিনার বেদিতে এসে শেষ হবে। পরদিন একুশে ফেব্রুয়ারি ভোরে প্রভাত ফেরির মাধ্যমে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, বিভিন্ন সরকারি দপ্তর এবং বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক এবং রাজনৈতিক দল প্রভাত ফেরি সহকারে শহিদ মিনার বেদীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করবে। চাঁদপুর কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার সম্মুখ সড়কে ব্রিজ থেকে শুরু করে মহিলা কলেজ রোড মোড় পর্যন্ত ১৯ ফেব্রুয়ারি রাতে আলপনা দ্বারা সুসজ্জিত করার কাজ পালন করবেন চারুশিল্পী অজিত দত্তের নেতৃত্বে খুদে চারুশিল্পীরা।

 

সর্বাধিক পঠিত