• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০
  • ||
  • আর্কাইভ

জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ ও যুব মহিলা লীগের আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

বিএনপি-জামাতের আমলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় নারীরা : শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপি

প্রকাশ:  ১১ মার্চ ২০২৩, ১৩:০৭
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপি বলেছেন, একাত্তরের পরাজিত শক্তি এদেশে গুম-খুনের অপরাজনীতি শুরু করেছিল। যেকোনো মূল্যে এই অপশক্তিকে প্রতিহত করতে হবে। যখনই এরা ক্ষমতায় যায় তখনই দেশের মানুষ বঞ্চিত-নির্যাতিত-নিপীড়িত হয়, দেশের উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হয়, উন্নয়ন অগ্রগতি বন্ধ হয়ে যায়, দেশ পেছনের দিকে যায়। বিশেষ করে বিএনপি-জামায়াত আমলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় নারীরা। কারণ নারীর শিক্ষা-দীক্ষায়, কাজকর্মে, স্বাধীনতাসহ সমস্ত কিছুর বিরুদ্ধে বিএনপি-জামাত অপশক্তি। তারা চায় না নারীরা এগিয়ে যাক, স্বাবলম্বী হোক, নিজেরা আত্মসম্মান নিয়ে স্বাধীনভাবে কাজ কর্ম করুক। কিন্তু একটা দেশের অর্ধেক জনশক্তি নারী। তাদের পেছনে ফেলে কোনো জাতি এগিয়ে যেতে পারে না। বিএনপি-জামায়াত আমলে দেশ আগায় না, শেখ হাসিনার সময় দেশ এগিয়ে যায়। শেখ হাসিনার সময় নারী-পুরুষ সবাই সমানতালে এগিয়ে যায়। ইনশাআল্লাহ আগামী নির্বাচনে জনগণ আবারো নৌকাকে জয়যুক্ত করে দেশের উন্নয়ন-অগ্রযাত্রাকে অব্যাহত রাখবে। আমরা যেমন ভালো আছি, আমাদের সন্তানরা আরো উন্নত জীবন-যাপন করবে, নতুন প্রজন্ম সুন্দর ভবিষ্যৎ পাবে সেই লক্ষ্য নিয়ে আমরা দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে কাজ করে যাচ্ছি।
তিনি গতকাল শুক্রবার বিকেলে চাঁদপুর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে চাঁদপুর জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ ও যুব মহিলা লীগ আয়োজিত আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এই কথাগুলো বলেন।
‘ডিজিটাল প্রযুক্তি ও উদ্ভাবন/জেন্ডার বৈষম্য করবে নিরসন’ এ প্রতিপাদ্যে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন হলেও সেটি রূপ নেয় বিরাট নারী সমাবেশে। অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন শিক্ষামন্ত্রীর সফর সঙ্গী সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য সৈয়দা রুবিনা আক্তার মিরা।
চাঁদপুর জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক অধ্যাপিকা মাসুদা নূর খানের সভাপতিত্বে ও সদস্য অধ্যক্ষ আফরোজা খাতুনের পরিচালনায় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা সদস্য এসএম সালাউদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডঃ মজিবুর রহমান ভূঁইয়া, চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র মোঃ জিল্লুর রহমান জুয়েল, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী বেপারী প্রমুখ।
নারী নেতৃবৃন্দের মধ্য বক্তব্য রাখেন জেলা যুব মহিলা লীগের সভানেত্রী ফরিদা ইলিয়াস, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সদস্য আয়েশা রহমান, ফেরদৌসী আক্তার, চাঁদপুর সদর উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহিদা বেগম, পৌর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শিপ্রা দাস, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী আয়েশা আক্তার শ্যামলী, জেলা যুব মহিলা লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমা আলম, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সদস্য খাদিজা বেগম ও আকলিমা শিউলী।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, আমাদের নারীদেরকে হাত ধরে এগিয়ে দিয়েছেন একজন শেখ হাসিনা। আজকের বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু কন্যার নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে। বঙ্গবন্ধু আমাদেরকে স্বাধীন দেশ দিয়ে গেছেন, তার কন্যা শেখ হাসিনা উন্নয়ন ও গণতন্ত্র দিয়েছেন। বাংলাদেশকে সারা বিশ্বের কাছে আত্মমর্যাদাশীল রাষ্ট্র হিসেবে পরিচিত করেছেন।
‘এখন বিশ^টাই হচ্ছে প্রযুক্তি’ উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, প্রযুক্তি নারীকে শিখতেই হবে। কারণ এই বিশ্বটাতেও নারীকে নিজের জায়গা করে নিতে হবে। নারী-পুরুষ সকল মানুষের বৈষম্য দূর করতে চেয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। বঞ্চনাহীন, শোষণহীন একটি বাংলাদেশ তৈরি করতে চেয়েছিলেন তিনি। তার প্রতি এই নারী দিবসে শ্রদ্ধা। আলোচনা শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক পরিবেশনা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে মহিলা আওয়ামী লীগ ও যুব মহিলা লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের শত শত নেত্রী ও সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

 

সর্বাধিক পঠিত