• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ২৫ বৈশাখ ১৪২৮
  • ||
  • আর্কাইভ

চাঁদপুর সরকারি কলেজে ‘বাংলাদেশ সরকারের চলমান উন্নয়ন মেগা প্রকল্পসমূহ : জাতীয় অর্থনীতিতে এর প্রভাব’ শীর্ষক ওয়েবিনার

মেগা প্রকল্পসমূহ যখন সম্পূর্ণভাবে চালু হবে, তখন আমরা অন্য এক বাংলাদেশকে পাবো : অধ্যক্ষ অসিত বরণ দাশ

প্রকাশ:  ১১ এপ্রিল ২০২১, ১৩:৫১
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ চাঁদপুর সরকারি কলেজে গতকাল ১০ এপ্রিল একটি ওয়েবিনার আয়োজন করা হয়। ১৯৭১ সালের এই দিন স্বাধীন সার্বভৌম গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার গঠন করা হয়। স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম সরকার গঠনের ৫০ বছর পূর্তি, সুবর্ণজয়ন্তীর দিন। এদিন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বাধীনতা ঘোষণাকে অনুমোদন করা হয়।
তাৎপর্যপূর্ণ দিবসটিতে সকাল সাড়ে ১১টায় চাঁদপুর সরকারি কলেজে ‘বাংলাদেশ সরকারের চলমান উন্নয়ন মেগা প্রকল্পসমূহ : জাতীয় অর্থনীতিতে-এর প্রভাব’ শীর্ষক একটি ওয়েবিনারের আয়োজন করা হয়। হিসাববিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ বেদারুল আলমের সভাপতিত্বে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন হিসাববিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোঃ আতিকুর রহমান। ওয়েবিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন চাঁদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর অসিত বরণ দাশ। বিশেষ অতিথি ছিলেন কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ আবুল খায়ের সরকার এবং শিক্ষক পরিষদ সম্পাদক কিউএম হাসান শাহরিয়ার। হিসাববিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক মহসীন শরীফের সঞ্চালনায় এতে মুখ্য আলোচক ছিলেন অর্থনীতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক কাজী জালাল উদ্দীন।
ওয়েবিনারে বর্তমান সরকারের বিভিন্ন মেগা প্রকল্পসমূহ নিয়ে তথ্য উপাত্ত উপস্থাপন করা হয় এবং এই প্রকল্পসমূহ থেকে জনগণ ও দেশ কীভাবে উপকৃত হবে তা আলোচনা করা হয়। অধ্যক্ষ অসিত বরণ দাশ তাঁর বক্তব্যে গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, জাতীয় চার নেতাসহ মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মদানকারী সকল বীরসেনানীকে। তিনি বলেন, ‘২০০৮ সালের পর এই মেগা প্রকল্পসমূহ হাতে নেয়ার কারণ হচ্ছে রাজনৈতিক সরকারের কমিটমেন্ট। বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার অভিজ্ঞতা, রাজনৈতিক দূরদর্শিতার কারণে আজ বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে এসেছে এবং বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা আজ বাস্তবে রূপ নিচ্ছে। বিশ^ আজ বাংলাদেশের উন্নয়নের দিকে তাকিয়ে আছে। এই মেগা প্রকল্পসমূহ যখন সম্পূর্ণভাবে চালু হবে, তখন আমরা অন্য এক বাংলাদেশকে পাব। উন্নয়নের এই ধারা অব্যাহত থাকলে আমরা ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশের কাতারে পৌঁছে যাব।’ তিনি ওয়েবিনার আয়োজনের সাথে যুক্ত সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।
বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান এবং শিক্ষকবৃন্দ ও ফেসবুক লাইভের মাধ্যমে শিক্ষার্থীগণ উক্ত ওয়েবিনারে অংশগ্রহণ করেন।