• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
  • ||
  • আর্কাইভ

ব্রেকিং নিউজ

শপথ নিলেন চাঁদপুর পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র জিল্লুর রহমান জুয়েল ও ২০ কাউন্সিলর

জনগণের আমানত সংরক্ষণ করা আপনাদের এখন শুধু নৈতিক দায়িত্বই নয়, ঈমানী দায়িত্ব : চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার এবিএম আজাদ, এনডিসি

প্রকাশ:  ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১০:২১
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

শপথ নিলেন শতোর্ধ্ব বয়সী চাঁদপুর পৌরসভার দ্বাদশ কর্ণধার, ১০ অক্টোবরের নির্বাচনে অবিস্মরণীয় বিজয়ের মহানায়ক পৌর মেয়র অ্যাডঃ জিল্লুর রহমান জুয়েল। আরও শপথ নিলেন তাঁর সাথে নির্বাচিত ২০জন কাউন্সিলর। গতকাল ২৪ অক্টোবর শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে নবনির্বাচিত মেয়র এবং কাউন্সিলরদের শপথবাক্য পাঠ করান চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার এবিএম আজাদ, এনডিসি। সাধারণ ওয়ার্ডে ১৫জন কাউন্সিলর এবং সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৫জন মহিলা কাউন্সিলর শপথগ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী ও চাঁদপুর-৩ (সদর-হাইমচর) আসনের সংসদ সদস্য ডাঃ দীপু মনি।

জেলা প্রশাসক মোঃ মাজেদুর রহমান খানের সভাপ্রধানে শপথবাক্য পাঠ করানো ছাড়াও বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার এবিএম আজাদ, এনডিসি। আরও বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মোঃ মাহবুবুর রহমান পিপিএম (বার)। চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ের আয়োজনে শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন চাঁদপুর স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জামান।

অনুভূতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন নবনির্বাচিত মেয়র অ্যাডঃ জিল্লুর রহমান জুয়েল। কাউন্সিলরদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ১০, ১১ ও ১২নং সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আয়েশা রহমান ও ১১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইকবাল হোসেন বাবু পাটওয়ারী।

শপথের পর শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এবং চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার নবনির্বাচিত মেয়র এবং কাউন্সিলরদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

শপথবাক্য পাঠ করানো শেষে চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার এবিএম আজাদ, এনডিসি তাঁর বক্তব্যে বলেন, আজকে শপথের মাধ্যমে যারা চাঁদপুর পৌরসভার জনগণের নাগরিকদের দায়িত্ব নিয়েছেন তাদের প্রতি অনুরোধ, আপনাদের হাতে চাঁদপুর পৌরবাসী যে দায়িত্বটুকু দিয়েছেন, সেটি তাদের আমানত। জনগণের সেই আমানত সংরক্ষণ করা আপনাদের এখন শুধু নৈতিক দায়িত্বই নয়, ঈমানী দায়িত্ব। তিনি বিভাগীয় প্রশাসন থেকে নবনির্বাচিতদের সু স্বাগত এবং অভিনন্দন জানান।

বিভাগীয় কমিশনার বলেন, গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় আপনারা জনগণের প্রতিনিধি হয়েছেন। প্রতিদিন মানুষের কাজ করার সুযোগ পেয়েছেন। কাজ করার সুযোগ আল্লাহ সবাইকে দেন না। যাদেরকে দেন তারা যেন সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি স্থানীয় জনগণকে তাদের প্রত্যাশা অনুযায়ী কাঙ্ক্ষিত সেবা প্রদানের আহ্বান জানান।

শপথ অনুষ্ঠান মঞ্চে উপবিষ্ট ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও পৌর নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক ডাঃ জেআর ওয়াদুদ টিপু, সহ-সভাপতি মোঃ ইউসুফ গাজী ও চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ সৈয়দা বদরুন নাহার চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটোয়ারী, অ্যাডঃ মজিবুর রহমান ভূঁইয়া, হাইমচর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নূর হোসেন পাটওয়ারী, হাজীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মাহবুব উল আলম লিপন, চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী বেপারী, আবিদা সুলতানাসহ গণমান্য ব্যক্তি, মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ, পেশাজীবী নেতৃবৃন্দ, বিপুল সংখ্যক দলীয় নেতা-কর্মী ও সমর্থকগণ।

শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদ কমপ্লেঙ্ জামে মসজিদের খতিব মুফতি মাওলানা কেফায়েত উল্লাহ। গীতা পাঠ করেন বিমল চন্দ্র দে, বাইবেল পাঠ করেন মনিন্দ্র্র বর্মন ও ত্রিপিটক পাঠ করেন ডাঃ পীযূষ কান্তি বড়ুয়া।

এরপর প্রধান অতিথি শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপি এবং চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার এবিএম আজাদকে চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ নূরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান, ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ আইয়ুব আলী বেপারী ও ইউপি চেয়ারম্যান সমিতির সভাপতি বেলায়েত হোসেন বিল্লাল। শপথ অনুষ্ঠানকে ঘিরে হলরুমের বাইরে বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মীর উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে যাতে সবাই অনুষ্ঠানটি উপভোগ করতে পারেন এজন্য ডিজিটাল পদ্ধতিতে বড় পর্দায় অনুষ্ঠানটির লাইভ দেখানো হয়।

উল্লেখ্য, ১০ অক্টোবর চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন ২০২০ অনুষ্ঠিত হয়। এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানব বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডঃ জিল্লুর রহমান জুয়েল নৌকা প্রতীকে পরবর্তী পাঁচ বছরের জন্য মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন।