• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
  • ||
  • আর্কাইভ

ব্রেকিং নিউজ

রোটারী ডিস্ট্রিক্ট কনফারেন্সে মিডিয়া সংক্রান্ত সেশনে বক্তাগণ

রোটারিয়ানরা প্রচারে নয়, মানবসেবায় নিজেদের উৎসর্গ করে

প্রকাশ:  ০৯ জানুয়ারি ২০২০, ১০:৪৩
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

শতবর্ষ ধরে রোটারী ক্লাব সারা বিশ্বে মানবতার সেবায় কাজ করছে। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে অসহায় মানুষের অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, চিকিৎসা ও শিক্ষার উন্নয়ন করছে রোটারী ক্লাবগুলো। বিশ্বের বৃহৎ অলাভজনক ফান্ড ‘রোটারী ফাউন্ডেশন’ ক্ষুধাপীড়িত ও দরিদ্র মানুষের উন্নয়নে মুহুর্মুহু কাজ করে যাচ্ছে। বিশ্ব থেকে পোলিও নির্মূল করতে রোটারিয়ানরা হাজার হাজার কোটি টাকা খরচ করছে। প্রতি মুহূর্তে সমাজ থেকে দারিদ্র্য বিমোচন করতে এবং স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নে রোটারী কাজ করছে। কিন্তু রোটারী ক্লাবের সামাজিক সেবামূলক কাজগুলো জনসাধারণ তেমন একটা জানে না। ফলে অনেকে মনে করেন, তারা শুধু ‘ইটিং, মিটিং ও সিটিং’ করছে। কিন্তু প্রকল্প তৈরি ও বাস্তবায়নে যে রোটারিয়ানরা নিজ অর্থ ব্যয় করছেন তা আলোচনা হচ্ছে না। তবে রোটারিয়ানরা কারো আলোচনা-সমালোচনার জন্য নয়, নিজেদের সমাজসেবায় উৎসর্গ করতে কাজ করে।
গত শনিবার ৪ জানুয়ারি বিকেলে সিলেটে রোটারী কনফারেন্সে ‘ইৎধহফরহম জড়ঃধৎু কবু ঃড় ইঁরষফরহম রঃ'ং চঁনষরপ ওসধমব’ শীর্ষক সেশনে এসব কথা বলেন বক্তারা। রোটারী ক্লাব সমাজের জন্য কী করছে এবং তাদের অর্থায়নের ব্যবস্থা সম্পর্কে জনসম্মুখে জানাতে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য ক্লাব নেতৃবৃন্দকে অনুরোধ জানান বক্তারা।
সিলেটের কুশিয়ারা ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে রোটারী আন্তর্জাতিক জেলা-৩২৮২ বাংলাদেশের ২০২০ সালের কনফারেন্সে দিনব্যাপী বিভিন্ন বিষয়ে সেশন অনুষ্ঠিত হয়। ঐসব সেশনে সেসব বিষয়ে অভিজ্ঞ রোটারিয়ান ও দেশের বিশিষ্টজনরা অংশ নেন। কনফারেন্সে প্রায় ২ হাজার রোটারিয়ান, তাদের পরিবারের সদস্য ও অতিথিরা অংশগ্রহণ করেন।
‘ইৎধহফরহম জড়ঃধৎু কবু ঃড় ইঁরষফরহম রঃ'ং চঁনষরপ ওসধমব’ শীর্ষক সেশনে প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন ভারতের মেঘালয় রাজ্যের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও রোটারী ইন্টারন্যাশনাল ডিস্ট্রিক্ট-৩২৪০-এর পিডিজি রোটাঃ মানস চৌধুরী। বক্তব্য রাখেন দৈনিক সিলেটের ডাকের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক ও সিলেট গার্ডেন সিটি রোটারী ক্লাবের সাবেক সভাপতি রোটাঃ ওয়াহিদুর রহমান ওয়াহিদ, গ্রেটার চিটাগাং রোটারী ক্লাবের চার্টার প্রেসিডেন্ট রোটাঃ মোহাম্মদ শাহজাহান, হবিগঞ্জ রোটারী ক্লাবের সাবেক সভাপতি রোটাঃ শামীম আহসান এবং দৈনিক ইল্শেপাড়ের প্রধান সম্পাদক ও চাঁদপুর রোটারী ক্লাবের ডিরেক্টর (ক্লাব সার্ভিস) রোটাঃ মাহবুবুর রহমান সুমন। মডারেটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন আইপিডিজি রোটাঃ দীলনাশিঁ মোহসেন।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে পিডিজি রোটাঃ মানস চৌধুরী বলেন, শত বছর ধরে মানবতার সেবায় কাজ করছে রোটারী ইন্টারন্যাশনাল। বিশ্বের ১২ লাখের বেশি রোটারিয়ান অসহায় মানুষদের সেবা করছে। কিন্তু এর প্রকৃত প্রচার-প্রচারণা নেই। ফলে অনেক দুষ্ট লোক রোটারী ক্লাবকে ‘ইটিং, মিটিং ও সিটিং’ ক্লাব বলে সমালোচনা করে। কিন্তু তাদের জানা নেই যে, ‘ইটিং, মিটিং ও সিটিং’ না করে কোনো প্রকৃত ভালো কাজ করা যায় না। একটি প্রকল্প বাস্তবায়নে ‘ইটিং, মিটিং ও সিটিং’-এর বিকল্প নেই। তবে আমরা রোটারিয়ানরা প্রচারের জন্য নয়, মানবতার সেবায় কাজের জন্যই একত্রিত হই এবং সেবার আদর্শে নিজেদের উৎসর্গ করি।
পত্রিকায় নিজেদের ক্লাব প্রকল্পের প্রেস বিজ্ঞপ্তি নিয়মিত প্রচারের ব্যবস্থার কথা বলতে গিয়ে তিনি বলেন, চাঁদপুর থেকে প্রকাশিত ‘দৈনিক ইলশেপাড়’ পত্রিকাটি কিছুক্ষণ আগে আমার হাতে এসেছে। সেখানে আজকের কনফারেন্সের খবরটি প্রচারিত হয়েছে। এতে সাধারণ মানুষ রোটারী সম্পর্কে কিছু ধারণা পেয়েছে। তবে ক্লাবের বিভিন্ন সেবামূলক প্রকল্প দৈনিক পত্রিকাগুলোতে প্রকাশের ব্যবস্থা করলে সাধারণ মানুষ সেই সেবাগুলোও নিতে পারবে। এছাড়া রোটারিয়ান চিকিৎসকদের চেম্বারগুলোতে রোটারী সম্পর্কিত নানা বই বা পত্র-পত্রিকা রাখলেও সাধারণ মানুষ রোটারীর কার্যক্রম সম্পর্কে জানতে পারবে। তিনি রোটারীর নানা জিনিস ব্র্যান্ডিংয়ের প্রতি গুরুত্ব দেন।
এ সময় রোটারী গভর্নর রোটাঃ লেঃ কর্নেল (অবঃ) প্রিন্সিপাল এম আতাউর রহমান পীর, রোটারী ইন্টারন্যাশনালের সাবেক ডিরেক্টর ও আরআই প্রেসিডেন্টের প্রতিনিধি পিডিজি রোটাঃ পিটি প্রভাকর, পিডিজি রোটাঃ এম জামালউদ্দিন, পিডিজি রোটাঃ আব্দুল আহাদ, পিডিজি রোটাঃ ড. মীর আনিসুজ্জামান, পিডিজি রোটাঃ সেলিম রেজা, পিডিজি রোটাঃ একেএম শামসুল হুদা, পিডিজি রোটাঃ ডাঃ মঞ্জুরুল হক চৌধুরী, পিডিজি রোটাঃ ড. ইশতিয়াক এ জামান, পিডিজি রোটাঃ ইঞ্জি. এমএ লতিফ, নির্বাচিত জেলা গভর্নর রোটাঃ ড. বেলাল আহমেদ, জেলা গভর্নর মনোনীত (২০২১-২২) রোটাঃ আবু ফয়েজ খান চৌধুরী ও কনফারেন্স চেয়ারম্যান রোটাঃ একেএম শামসুল হক দিপুসহ রোটারিয়ান ও অতিথিরা উপস্থিত ছিলেন।
পরে কনফারেন্সের মিডিয়া সাব-কমিটির কো-চেয়ারম্যান, দৈনিক ইল্শেপাড়ের প্রধান সম্পাদক ও চাঁদপুর রোটারী ক্লাবের ডিরেক্টর (ক্লাব সার্ভিস) রোটাঃ মাহবুবুর রহমান সুমন সম্প্রতি বিভিন্ন পত্রিকা ও অনলাইন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত কনফারেন্সের সংবাদের স্পাইরেল বাইডিং কপি কনফারেন্স চেয়ারম্যান রোটাঃ একেএম শামসুল হক দিপু ও অনুষ্ঠানের মডারেটর আইপিডিজি রোটাঃ দীলনাশিঁ মোহসেনের হাতে তুলে দেন।
রোটাঃ মাহবুবুর রহমান সুমন জানান, দায়িত্বপ্রাপ্তির পর সহকর্মী সাংবাদিকদের সহযোগিতায় রোটারী কনফারেন্সের বেশ কয়েকটি সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। বিভিন্ন জাতীয় ও বিভিন্ন জেলা থেকে প্রকাশিত দৈনিক ও সাপ্তাহিক পত্রিকা এবং অনলাইন সংবাদ মাধ্যমগুলো এসব সংবাদ প্রকাশ করে। ঐ সেশনে স্মারক হিসেবে সেগুলো সংরক্ষণের জন্য কনফারেন্স কমিটির কাছে তা হস্তান্তর করা হয়। ভতিষ্যতে আরো ভালোভাবে সংবাদকর্মীদের সহযোগিতা পাবার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন তিনি।

 

সর্বাধিক পঠিত