• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
  • ||
  • আর্কাইভ

ব্রেকিং নিউজ

চাঁদপুরে রোটারী ক্লাবের ৫০ বছর পূর্তি উৎসব

দেশ, জাতি ও মানুষের কল্যাণে নিবেদিত রোটারী ক্লাব : শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপি

প্রকাশ:  ২১ নভেম্বর ২০২০, ১২:৫৩
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি বলেছেন, সমাজ উন্নয়নে রোটারী ক্লাবের অবদান অসামান্য। বিগত ৫০ বছর ধরে চাঁদপুরে রোটারী ক্লাব শহর থেকে দূরে প্রত্যন্ত গ্রামগুলোতে নানারকম সমাজ সেবামূলক কাজ করে চলেছে। যা অন্যদের সেবামূলক কাজে অনুপ্রাণিত করে। মানবতার সেবায় নিবেদিত রোটারী ক্লাব।

তিনি গতকাল ২০ নভেম্বর শুক্রবার সন্ধ্যায় চাঁদপুর শহরের কাজী নজরুল ইসলাম সড়কস্থ চাঁদপুর রোটারী ক্লাবের নিজস্ব ভবনে চাঁদপুরে রোটারী ক্লাবের ৫০ বছর পূর্তি উৎসব ও ৪৬তম অভিষেক ২০২০ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। রোটারিয়ানদের মিলনমেলার জমকালো এ উৎসব আয়োজনে তিনি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সংযুক্ত হন।

চাঁদপুর রোটারী ক্লাবের ২০২০-২০২১ রোটা বর্ষের সভাপতি রোটাঃ নাসির উদ্দিন খান পিএইচএফ-এর সভাপ্রধানে এবং চাঁদপুরে রোটারী ক্লাবের পঞ্চাশ বছর পূর্তি উদ্যাপন কমিটির আহ্বায়ক কাজী শাহাদাত পিএইচএফ-এর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীতে চাঁদপুরে রোটারীর পঞ্চাশ বছর পূর্তি অর্জন এক অনন্য দৃষ্টান্ত। রোটারীর সেবার মানসিকতার সাথে জাতির জনকের আদর্শের অনেক মিল রয়েছে। জাতির জনক নিজের জীবনকে তুচ্ছ করে দেশ ও জাতির জন্যে আজীবন কাজ করে গেছেন।

তিনি বলেন, মানবতার সেবায় নিবেদিত রোটারী ক্লাবের যাত্রা শুরু হয় ১৯০৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রে। সে বছর রোটারীর জনক পল পার্সিভাল হ্যারিসের উদ্যোগে ভিন্ন ভিন্ন পেশার মাত্র ৪ জন সদস্য নিয়ে রোটারী আন্তর্জাতিকের পথচলা শুরু হয়। আর চাঁদপুরে রোটারী ক্লাব প্রতিষ্ঠা হয় ১৯৭০ সালের ২০ নভেম্বর।

সেই থেকে আজও মানবতার সেবায় নিয়োজিত রয়েছে চাঁদপুরের রোটারিয়ানরা। রোটারী আন্দোলন আরো বেগবান হোক এটাই আমার কামনা। তিনি সবাইকে শুভেচ্ছা এবং অভিনন্দন জানান।

তিনি তাঁর বক্তব্য আরো বলেন, সুপেয় পানি, মাতৃ ও শিশু স্বাস্থ্যসেবা, স্বাস্থ্য, সামাজিক উন্নয়ন এগুলো হচ্ছে রোটারীর অন্যতম সেবামূলক কাজ। এ ছাড়াও রোটারীর উল্লেখযোগ্য কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে বিশ্বকে পোলিওমুক্ত করা, আর্সেনিকমুক্ত বিশুদ্ধ পানীয় ব্যবস্থা, সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের জন্যে স্বল্প খরচে চিকিৎসা ও হুইল চেয়ার বিতরণ। এ ছাড়া বর্তমানে প্রতিটি রোটারী ক্লাবই বৃক্ষরোপণ, শীতবস্ত্র বিতরণসহ নানামুখি সামাজকি কর্মকা- চালিয়ে যাচ্ছে।

কোরআন তেলাওয়াত ও গীতা পাঠের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু করা হয়। রোটারী প্রত্যয় পাঠ করেন রোটারিয়ান পিপি জাকির হোসেন।

এরপর জাতীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে শুরু হয় উৎসবের অভিষেক অনুষ্ঠান। অভিষেক অনুষ্ঠান কমিটির চেয়ারম্যান রোটাঃ পিপি তমাল কুমার ঘোষের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন পঞ্চাশ বছর পূর্তি উদ্যাপন পরিষদের সদস্য সচিব রোটাঃ অ্যাডঃ সাইয়েদুল ইসলাম বাবু।

বক্তব্য রাখেন সাবেক ডিস্ট্রিক্ট গভর্নর রোটাঃ প্রফেসর তৈয়ব চৌধুরী, চট্টগ্রাম রোটারী ক্লাবের সাবেক সভাপতি রোটাঃ শহীদুল্লাহ চৌধুরী, রোটাঃ ইঞ্জিনিয়ার মতিউর রহমান চৌধুরী।

আরো বক্তব্য রাখেন ডেপুটি গভর্নর রোটাঃ পিপি মফিজ উদ্দিন সরকার পিএইচএফ, নতুন বছরের অ্যাসিস্ট্যান্ট গভর্নর রোটাঃ অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা, রোটারী ক্লাবের বিদায়ী সভাপতি রোটাঃ শেখ মঞ্জুরুল কাদের সোহেল পিএইচএফ, বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক রোটাঃ অ্যাডঃ শরীফ মাহমুদ ফেরদৌস শাহীন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপির জীবন বৃত্তান্ত তুলে ধরেন রোটাঃ মোঃ মিজানুর রহমান খান।

আলোচনা পর্বের আগে প্রবীণ রোটারিয়ানদের উত্তরীয় পরিয়ে এবং ক্রেস্ট প্রদান করে সংবর্ধিত করা হয়। এরপর অনুষ্ঠিত হয় গুণীজন সংবর্ধনা।

'ইতিহাস কথা কয়' শীর্ষ আন্তর্জাতিক মানের আলোকচিত্র সংগ্রাহক এবং আলোকচিত্র প্রদর্শনীর উদ্যোক্তা বীর মুক্তিযোদ্ধা লেখক ও গবেষক সাহাবউদ্দিন মজুমদার এবং প্রবীণ বিশেষজ্ঞ ও গবেষক বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে প্রবীণ বিষয়ক পাঠ্যসূচীর অন্তর্ভুক্ত বহুল পঠিত প্রবীণ কথা বইয়ের রচয়িতা হাসান আলীকে গুণীজন সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। এছাড়া উৎসব অনুষ্ঠানে ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত তিনজন ও গৃহ নির্মাণের জন্যে অসহায় একটি পরিবারকে আর্থিক অনুদান প্রদান করা হয়।

উৎসবের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন রোটাঃ ডাঃ পীযূষ কান্তি বড়ুয়া। রোটাঃ পিপি মোঃ জাহাঙ্গীর আখন্দ সেলিম, সুভাষ চন্দ্র রায়, রোটাঃ ডাঃ এসএম সহিদউল্লাহ, ডাঃ এমজি ফারুকসহ আমন্ত্রিত অতিথি রোটারিয়ান, অন্যান্য রোটারিয়ান ও তাদের পরিবারের সদস্যগণ এবং রোটার‌্যাক্টবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের উল্লেখযোগ্য দিক ছিল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং আকর্ষণীয় র‌্যাফেল ড্র ও পুরস্কার বিতরণ।

এ দিন চাঁদপুরে রোটারী ক্লাবের ৫০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপনে দিনব্যাপী কর্মসূচির মধ্যে ছিলো সকাল ৭টায় চাঁদপুর পৌর কবরস্থানে ক্লাবের চার্টার প্রেসিডেন্ট মরহুম রোটারিয়ান ডাঃ নূরুর রহমানের কবর জিয়ারত, সাড়ে ৭টায় চাঁদপুর স্টেডিয়াম থেকে র‌্যালি, সাড়ে ৮টায় ডাকাতিয়ায় নদী ভ্রমণ, বেলা ১১টায় রোটারী ভবনে চাঁদপুর রূপসী রোটার‌্যাক্ট ক্লাবের ২৬তম অভিষেক অনুষ্ঠান, আড়াইটায় চাঁদপুর রোটার‌্যাক্ট ক্লাবের ৪৬তম অভিষেক অনুষ্ঠান এবং সন্ধ্যা ৭টায় চাঁদপুরে রোটারী ক্লাবের ৫০ বছর পূর্তি অনু্ষ্ঠান।

এই উৎসবকে স্মরণীয় করে রাখার জন্যে পত্রিকায় বিশেষ ক্রোড়পত্র, করোনা মোকাবেলায় মাস্ক বিতরণসহ আরো অনেক কিছুই করা হয়।