• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • শুক্রবার, ২২ জানুয়ারি ২০২১, ৮ মাঘ ১৪২৭
  • ||
  • আর্কাইভ

ব্রেকিং নিউজ

নূরিয়া পাইলট উবির একাডেমিক ভবন নির্মাণ কাজ উদ্বোধন

ঐতিহ্যবাহী এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে আমার সর্বাত্মক সহযোগিতা থাকবে : মেয়র জিল্লুর রহমান জুয়েল

প্রকাশ:  ২৫ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:১৬
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

চাঁদপুর নূরিয়া পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেছেন চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র অ্যাডঃ জিল্লুর রহমান জুয়েল। গতকাল ২৪ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার সকালে নির্মাণ কাজের উদ্বোধনকালে মেয়র জিল্লুর রহমান জুয়েল বলেন, ঐতিহ্যবাহী এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অনেক সুনাম রয়েছে। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মিজানুর রহমান চৌধুরীসহ অনেক দেশবরেণ্য মানুষ রয়েছেন যাঁরা এই বিদ্যালয়ের ছাত্র ছিলেন। বিদ্যালয়টিকে নান্দনিক সৌন্দর্যে গড়ে তোলার পাশাপাশি শিক্ষার মানোন্নয়নে আমাদের সকলকে চেষ্টা চালাতে হবে। মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনির আন্তরিক প্রচেষ্টায় নতুনভাবে একাডেমিক ভবন নির্মাণ হচ্ছে। ভবনটি নির্মিত হলে বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষ সঙ্কট সমস্যার কিছুটা সমাধান হবে বলে আমি মনে করি। ঐতিহ্যবাহী এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে আমি সর্বাত্মক সহযোগিতা করতে চেষ্টা করবো। তিনি বলেন, নান্দনিক পরিবেশ শিক্ষাগ্রহণে সহায়ক ভূমিকা পালন করে। আমাদেরকে সুশিক্ষিত হলেই হবে না, ভালো মানুষ হতে হবে। দেশের উন্নয়নে কাজ করতে হবে। ভালো কাজে সম্পৃক্ত থাকতে হবে। তিনি পৌর পরিষদের উন্নয়ন ও নাগরিক সুবিধা বৃদ্ধিতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আলহাজ মোস্তাক হায়দার চৌধুরী, প্রধান শিক্ষক মোঃ আবু তাহের তফাদার, জেলা পরিষদ সদস্য মুকবুল হোসেন মিয়াজী, পৌর কাউন্সিলর আঃ লতিফ গাজী, নির্মাণ কাজের ঠিকাদার মোঃ ফারুক আহম্মদ আখন্দ, বিদ্যালয়ের শিক্ষানুরাগী সদস্য ব্যাংকার রফিক আহমেদ মিন্টু, শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবক মেজবাহ উদ্দিন ভূঁইয়া, ফয়সাল আহম্মদ চৌধুরী, নকিবুল ইসলাম চৌধুরী, মাঈনুদ্দিন হায়দার চৌধুরী, বাহার হায়দার চৌধুরী, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম বিপ্লবসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

মোস্তাক হায়দার চৌধুরী জানান, দীর্ঘদিন যাবত এ বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষ সঙ্কট চলছিলো, নতুন একটি একাডেমিক ভবনের প্রয়োজন ছিলো। ভবনটি নির্মাণ হলে ছাত্র-ছাত্রীরা ক্লাস করতে অনেকটা স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করবেন। ফলে বিদ্যালয়ের লেখাপড়ার মান বৃদ্ধি পাবে। তিনি পূর্বের চেয়ে বর্তমান সময় বিদ্যালয়টি ভালো ফলাফল করার জন্যে শিক্ষকদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং অভিভাবকগণ যাতে তাদের সন্তানদের এ বিদ্যালয়ে ভর্তি করান সেজন্যে সকলকে অনুরোধ জানান। তিনি একটি একাডেমিক ভবন নির্মাণে সহায়তা করার জন্যে শিক্ষামন্ত্রীর প্রতিও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

উল্লেখ্য, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের অধীনে ৮২ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মাণ হবে এ একাডেমিক ভবন। ৪ তলা ফাউন্ডেশনের একাডেমিক ভবনটি বর্তমানে একতলা হবে।

সর্বাধিক পঠিত