• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
  • ||
  • আর্কাইভ

ব্রেকিং নিউজ

মদনা গ্রামে তিন কিশোরীকে অচেতন করে ধর্ষণের অভিযোগ

মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি

প্রকাশ:  ১৪ অক্টোবর ২০২০, ১০:৫৬
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

চাঁদপুর সদর উপজেলার ১২নং চান্দ্রা ইউনিয়নে তিন কিশোরীকে অচেতন করে ধর্ষণ করার পর ঘর থেকে মোবাইল ফোন, নগদ টাকা চুরি করে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে।

অচেতন ও মুমূর্ষু অবস্থায় ওই তিন কিশোরীকে উদ্ধার করে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সোমবার ভোরে চান্দ্রা ইউনিয়নের মদনা গ্রামের ৪নং ওয়ার্ড বরকন্দাজ বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। নির্যাতিত কিশোরী তিনজন চান্দ্রা দক্ষিণ মদনা দাখিল মাদ্রাসার ছাত্রী বলে জানা যায়।

নির্যাতিত কিশোরীর মা খাদিজা বেগম জানান, দুই মেয়েকে বাড়িতে রেখে ব্যক্তিগত কাজে ঢাকায় যাওয়ার সুযোগে পাশের ঘরের বাচ্চু মিয়ার বখাটে ছেলে মিলন রোববার রাতে ঘরে আসে। এ সময় বখাটে মিলন কোকাকোলার ভিতরে নেশাজাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে তাদেরকে খাওয়ার জন্যে জোর করে। ঘরের ভিতর দুই মেয়ে ও ভাসুরের মেয়েসহ ৩জন নেশাদ্রব্য মেশানো কোকাকোলা খেয়ে অচেতন হয়ে পড়ে।

স্থানীয় বখাটে মিলন সুযোগ বুঝে সোমবার ভোর রাতে ঘরে সিঁধ কেটে গর্ত করে ভিতরে ঢুকে তিনজনকে ধর্ষণ করে। সকালে পাশের বাড়ির লোকজন সিঁধ কাটা অবস্থা দেখতে পেয়ে ভিতরে ঢুকে অচেতন অবস্থায় তিনজনকে পড়ে থাকতে দেখে। এ সময় তাদেরকে উদ্ধার করে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

ঘটনার পর থেকেই ধর্ষক মিলন এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে।