• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • রোববার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৭
  • ||
  • আর্কাইভ

ব্রেকিং নিউজ

যাত্রী রায়হানের ১০ দিন পর চলে গেলেন চালক আরিফ

প্রকাশ:  ২৭ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:৪৭
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

ব্যাটারী চালিত অটোবাইক দুর্ঘটনার কিছু সময় পর যাত্রী রায়হান (১৮) মারা যান। রায়হান মারা যাওয়ার ১০ দিন পর সেই একই ঘটনায় আহত অটোবাইক চালক আরিফ হোসেন (২৩) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেলেন। গত ১৫ ডিসেম্বর চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের ওয়ারুক স্টেশন বাজারের পশ্চিম মাথায় বালুবাহী ট্রাকের সাথে অটোবাইকের সংঘর্ষে মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটে অয়েল পাম্পের সামনে। এ ঘটনায় তরতাজা দু'টি প্রাণ চলে গেলেও কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। আরিফ হাজীগঞ্জ উপজেলার হাটিলা পূর্ব ইউনিয়নের লাওকরা গ্রামের গাজী বাড়ির বাসিন্দা।


গত ২৪ ডিসেম্বর আরিফ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেলে সেখান থেকে পরের দিন তার গ্রামের বাড়ি হাজীগঞ্জে লাউকরা গ্রামের নিজ বাড়িতে এনে দাফন করা হয়েছে। রায়হানকে ঘটনার দিন রাতেই নিজ বাড়িতে দাফন করা হয়েছে। রায়হান হাজীগঞ্জ পৌরসভাধীন ৯নং ওয়ার্ড এনায়েতপুর (রাজাপুর) গ্রামের রুহুল আমিনের ছেলে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত ১৫ ডিসেম্বর মঙ্গলবার দুপুরে চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের শাহরাস্তি উপজেলার উয়ারুক স্টেশন বাজারের পেট্রোল পাম্পের সামনে অটোবাইক ও একটি বালুবাহী ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনাস্থলে অটোবাইকের যাত্রী মোঃ রায়হান হোসেন (১৮) মারা যান এবং চালক আরিফ হোসেন ও শিশু যাত্রী রিশাদ (৫) গুরুতর আহত হয়ে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। আরিফের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করে আর সেখানে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

শাহরাস্তি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আব্দুল মান্নান জানান, এ ঘটনায় ওই সময় নিহত যাত্রী রায়হান, আহত চালক আরিফ হোসেন ও যাত্রী রিশাদের পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ করেনি। আর অভিযোগ না থাকায় থানায় মামলা হয়নি।