• পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
  • মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১, ১৭ ফাল্গুন ১৪২৭
  • ||
  • আর্কাইভ

ব্রেকিং নিউজ

চাঁদপুরে প্রতিষ্ঠিত হবে ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি

নির্ধারিত স্থান পরিদর্শনে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব

প্রকাশ:  ২০ জানুয়ারি ২০২১, ১৪:০৪
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

চাঁদপুর সদর উপজেলার ৫নং রামপুর ইউনিয়নে ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি (আইএইচটি) প্রতিষ্ঠা করার লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠানটির অবকাঠামো নির্মাণের জন্য স্থান পরিদর্শনে এসেছেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মৃণাল কান্তি দাস।

গত ১৮ জানুয়ারি সোমবার দুপুরে চাঁদপুর সদর উপজেলার ৫নং রামপুর ইউনিয়নের বদরখোলা এলাকায় প্রতিষ্ঠানটির জন্যে পছন্দ করা স্থান পরিদর্শন করতে আসেন তিনি। পরে তিনি প্রতিষ্ঠানটির পছন্দ করে রাখা ৩ একর সম্পত্তি ঘুরে ঘুরে দেখেন। এ সম্পত্তির বিষয়ে জনপ্রতিনিধিসহ স্থানীয়দের সাথে কথা বলেন।

পরে অতিরিক্ত সচিব মৃণাল কান্তি দাস বলেন, এ ইউনিয়নে প্রতিষ্ঠা করা হবে ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি (আইএইচটি)। এজন্যে মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে স্থান পরিদর্শনে এসেছি। তিনি আরো বলেন, আমি স্থান পরিদর্শন করেছি। সম্পত্তির বিষয়ে প্রতিবেদন জমা দেয়ার পর ভূমি অধিগ্রহণ করার সিদ্ধান্ত হবে। আশা করি, খুব দ্রুত প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য কাজ শুরু হবে। তিনি এ বিষয়ে এলাকাবাসীর সহযোগিতা কামনা করেন।

চাঁদপুরের সিভিল সার্জন ও স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, চাঁদপুর সদরের ৫নং রামপুর ইউনিয়নের বদরখোলা এলাকায় আইএইচটি প্রতিষ্ঠায় স্থান নির্ধারণ শেষে পরিদর্শন করা হয়। সারাদেশে বিভাগীয় পর্যায়ে এ ধরনের প্রতিষ্ঠান থাকলেও চাঁদপুর জেলায় এই প্রথম প্রতিষ্ঠান করা হচ্ছে ।

রামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আল মামুন পাটওয়ারী জানান, এ এলাকার কৃতী সন্তান চাঁদপুরের মাটি ও মানুষের নেত্রী মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপির এটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ। আমরা ইউনিয়নবাসী তাঁর কাছে কৃতজ্ঞ। বিশেষ করে আমি উক্ত ইউনিয়নের জনগণের প্রতিনিধি হিসেবে রামপুর ইউনিয়নবাসীর পক্ষে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

পাশাপাশি জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ডাঃ জেআর ওয়াদুদ টিপু ভাইয়ের অক্লান্ত প্রচেষ্টায় আইএইচটি প্রতিষ্ঠায় কাজ চলছে। ইউনিয়নের বদরখোলা বাজারের দক্ষিণে রাস্তার পাশে ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি নির্মাণের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি ডিও লেটার দেয়ার পর প্রশাসনিক অনুমোদন হয়েছে।

চাঁদপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ সাখাওয়াত উল্লাহ বলেন, ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি (আইএইচটি) প্রতিষ্ঠা করতে সরেজমিনে গিয়ে দেখে এসেছি। পরিদর্শনের প্রতিবেদন জমা দেয়ার পর আইএইচটি নির্মাণে জমি অধিগ্রহণ করে পরবর্তী সকল পদক্ষেপ নেয়া হবে। আইএইচটি প্রতিষ্ঠা হলে চার বছর মেয়াদের ডিপ্লোমা কোর্স সম্পন্ন করার পর এখানকার শিক্ষার্থীরা স্যানেটারী ইন্সপেক্টর হওয়ার যোগ্যতা অর্জন করবেন।

এ সময় চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) অসিম চন্দ্র বণিক, সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ সাখাওয়াত উল্লাহ, পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ ইলিয়াছ, রামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আল মামুন পাটওয়ারী, ইউনিয়ন ভূমি অফিসের তহশিলদার নজরুল ইসলামসহ বিভিন্ন প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সর্বাধিক পঠিত